মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

বার্তা

শিল্পনগরীখ্যাত বিভাগীয় শহর খুলনার প্রবেশদ্বার ফুলতলা ।  নৌপথ, রেলপথ ও উন্নত সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা ফুলতলার  গতিকে সবসময় সচল রাখছে। সকল শ্রেণী পেশার সচেতন জনগোষ্ঠীর বসবাস এখানে। আটরা-গিলাতলা, দামোদর, জামিরা ও ফুলতলা ০৪ টি ইউনিয়ন বিশিস্ট এ উপজেলার ঐতিহ্য হলো পাপড়, গামছা, নার্সারী, চিংড়ী এবং পাটশিল্প। জাহানাবাদ ক্যান্টনমেন্ট, মিলিটারী কলেজিয়েট স্কুল খুলনা, বিকেএসপি'র আঞ্চলিক কার্যালয়, বিসিক শিল্প নগরী, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শ্বশুড়বাড়ী, হযরত খানজাহান আলীর স্মৃতি বিজড়িত ঐতিহাসিক মসজিদসহ আরো অনেক স্থাপনা ও প্রতিষ্ঠান ফুলতলার অহংকার।  ফুলতলার পায়গ্রাম-কসবায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন ফিঙ্গার প্রিন্টের আবিস্কারক কাজী   আজিজুল হক(১৮৭২-১৯৩৫)।   এছাড়া এখানে অনেক জ্ঞানী গুনী লোক বাস করেন। এ উপজেলার অধিকাংশ মানুষের জীবনমান উন্নয়নের প্রয়োজন রয়েছে। তথ্য  প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহারের মাধ্যমে জনগনের দোরগোড়ায় সরকারী বেসরকারী সকল সেবা দ্রুত পৌছে দেওয়ার ক্ষেত্রে ফুলতলা উপজেলা অগ্রনী ভূমিকা পালন করছে।

 

সকলের সহযোগিতা ও সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে  একটি সুষ্ঠু, সুন্দর, সন্ত্রাসমুক্ত, উন্নয়নমুখী ও আদর্শ ফুলতলা গড়াই আমাদের অভীস্ট লক্ষ্য।

 

                                                                                 

                                                                                   উপজেলা নির্বাহী অফিসার

                                                                                     ফুলতলা, খুলনা

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter